আজ : ১৬ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, মঙ্গলবার প্রকাশ করা : জুন ১৮, ২০২২
Print Friendly, PDF & Email

  • কোন মন্তব্য নেই

    মহানবীকে কটুক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

    রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ
    “বিশ্ব নবীর অপমান, সইবেনারে মুসলমান” এমন স্লোগানে স্লোগানে রূপগঞ্জ
    উপজেলার তারাবো পৌরসভার বরপা, সুতালড়া, মাসাবো, বাগানবাড়ি, শান্তিনগড়সহ
    এলাকার ধর্মপ্রান মুসলমানগণ মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে ভারতের
    বিজেপির মুখপাত্র কর্তৃক কটুক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ
    সমাবেশ করেছে। রাসুল (সাঃ) এর বিরুদ্ধে এমন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও
    প্রতিবাদ জানায় বিক্ষোভকারীরা। শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর এলাকার সকল
    মসজিদের মুসল্লিরা মিছিল নিয়ে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের বরপা বাসস্ট্যান্ড
    থেকে কর্ণগোপ এলাকা পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার রাস্তা প্রদক্ষিণ করে
    প্রতিবাদ জানায় তারা।
    বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা বলেন, আমাদের প্রাণের নবী
    হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) এর বিরুদ্ধে কটূক্তি মুসলমান এর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ
    হয়েছে। ভারতের উগ্রবাদ হিন্দুত্ববাদী ভারতের সংখ্যালঘুদের জন্য বিপদজনক।
    রাসুল (সাঃ)’র বিরুদ্ধে এমন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
    আমাদের প্রতিবাদ করতে হবে নিয়মতান্ত্রিক ও শান্তিপূর্ণভাবে। ইসলাম যে
    শান্তির ধর্ম সেটাও প্রতিবাদের মাধ্যমে প্রমাণ করতে হবে। আমরা
    শান্তিপূর্ণ এবং নিয়মতান্ত্রিকভাবে প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পাশা-পাশি ধর্ম
    প্রান মুসলমানদের ভারতীয় পন্য বয়কটের আহবান জানাই। সাম্প্রদায়িক
    সম্প্রীতি রক্ষার স্বার্থে ভারতের ইসলাম বিদ্বেষী অভিযুক্তদের অবিলম্বে
    গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। ধর্মীয় শান্তি বিনষ্টের
    দায়ে আমরা এই দুই নেতার সর্বোচ্চ শাস্তির জোর দাবি জানাচ্ছি।’ অপরাধীদের
    দৃষ্টান্তমূলক শান্তি না হওয়া পর্যন্ত আমরা আমাদের কর্মসূচি অব্যাহত
    রাখব।

    উল্লেখ্য, সম্প্রতি ভারতীয় একটি টেলিভিশন বিতর্কে অংশ নিয়ে মহানবী হজর
    মুহাম্মদ(সা.) ও তার স্ত্রী আয়েশা (রা.) সম্পর্কে অবমাননাকর বক্তব্য দেন
    ক্ষমতাসীন দল বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র নুপুর শর্মা। পরে একই বিষয়ে টুইটারে
    পোস্ট দেন দলটির আরেক জ্যেষ্ঠ নেতা নাভিন কুমার জিন্দাল। এ নিয়ে মুসলিম
    সম্প্রদায়ের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ইতোমধ্যে এ ঘটনায় মধ্যপ্রাচ্যসহ
    বিশ্বের অনেক মুসলিম দেশ প্রতিবাদ জানায়। ভারতে মহানবী (সা.) ও হজরত
    আয়েশা (রা.)-কে নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্যের প্রতিবাদে অবিলম্বে
    রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা প্রস্তাব আনার জোর দাবি জানান বক্তারা

    Print Friendly, PDF & Email

    Leave a Reply

    Your email address will not be published.