বুধবার , ৩০ নভেম্বর ২০২২ | ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অভিযোগ
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আগুন দুর্ঘটনা
  6. আটক
  7. আন্তর্জাতিক
  8. আরো
  9. আলোচনা সভা
  10. ইসলামিক
  11. উদ্ধার
  12. কবিতা
  13. কমিটি গঠন
  14. কৃষি সংবাদ
  15. ক্যাম্পাস

রাজশাহীতে ওসি, এএসপি’র নাম ভাঙ্গিয়ে এসআই এর চাঁদাবাজি

প্রতিবেদক
ঢাকার টাইম
নভেম্বর ৩০, ২০২২ ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর বাগমারা থানার, বিকাশ প্রতারণার মামলাকে পুঁজি করে উপ-পরিদর্শক (এসআই) আল-ইমরানের ধারাবাহিক চাঁদাবাজি ও হয়রানির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভুগী আরাফাত সাইদ। আরাফাত বাঘা উপজেলার বলিহার (হাজিপাড়া) গ্রামের আফতাব হোসেনের ছেলে।

বুধবার (৩০ নভেম্বর) দুপুর ১২.৩০ মিনিটে রাজশাহী বরেন্দ্র প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে ভুক্তভোগী আরাফাত তার লিখিত বক্তব্যে জানান, আমি একজন এইচএসসি পরীক্ষার্থী। বর্তমানে আমার পরীক্ষা চলছে। গত ১০ জানুয়ারি ২০২২ সালে বাগমারা থানায় ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অজ্ঞাত আসামী উল্লেখ করে একটি প্রতারণার মামলা রুজু হয়। যার মামলা নং ১০/২২। পরবর্তীতে সেই মামলায় তদন্তপুর্বক কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে আসামি করে থানা পুলিশ। যাদের অনেকের বাড়ি আমার এলাকায়। আসামীর বাড়ি আমার বাড়ির পাশে এবং সমবয়সী হওয়াতে উক্ত মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই আল-ইমরান সেই আসামীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে সেই জায়গায় আমাকে আসামি করবে বলে বিভিন্ন মাধ্যমে ভয় ভিতি প্রদর্শন করছেন। এছাড়াও পর পর ২ দিন মাঝরাতে আমার বাড়িতে এসে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এবং মোটা অংকের টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে আমাকে বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেয়। এসআই আল ইমরান ইতোমধ্যে আমার এক পরিচিতের মাধ্যমে বলেন, দাবিকৃত টাকা না দিলে আমার এইচএসসি পরীক্ষা দেওয়ার আগেই গ্রেফতার করবেন। মামলার এজাহারে নাম না থাকলেও গ্রেফতার কৃত আসামীদের কাছ থেকে স্বীকারোক্তি নিয়ে আমাকে যে কোন সময় আটক করতে পারবেন বলেও হুমকি দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, আমার নামে দেশের কোথাও কোন মামলাও নাই।  তারপরও বাগমারা থানার এসআই আল-ইমরান আমার পরিবারের কাছ থেকে বার বার ফোন দিয়ে এডিশনাল এসপি এবং বাগমারা থানার ওসি সহ ৩ জন কর্মকর্তাকে দেয়ার কথা বলে টাকা দাবি করছেন। সর্বশেষ ২৬ নভেম্বর রাত ১০ টা দিকে এসআই আল ইমরানের ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বার (০১৭৫২৪০৪৬১২) থেকে আমার শশুর আসাদুল ইসলামের (০১৮১৬৭০০১৮৩) নাম্বারে ফোন করে ৪০ হাজার টাকা ফোনে বিকাশের মাধ্যমে চান। টাকা না দিলে উক্ত মামলায় আমার নাম ঢুকিয়ে দিবে বলে হুমকি দিচ্ছে এবং পরীক্ষা বানচালের চেষ্টা করছেন। আমার পরীক্ষা বাতিলসহ নানা ভয়ভীতির কারণে পরিবারের লোকজন খুব চিন্তিত। এমতাবস্থায় আপনাদের মাধ্যমে আমার পরিবারের নিরাপত্তা, সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা প্রদান ও দোষি এসআই এর সুবিচার প্রার্থনাসহ শাস্তি কামনা করছি।
উল্লেখ, উক্ত মামলার বাদী বাগমারা উপজেলার ঝিকড়া (কুদাপাড়া) গ্রামের মকছেদ আলীর স্ত্রী মোঃ বেদেনা বিবি (৩০)। পরবর্তীতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে এই মামলা সকল আসামীদের নিকট থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়েছেন মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই আল ইমরান।
জানতে চাইলে অভিযুক্ত এস আই আল ইমরান বলেন, সংবাদ সম্মেলন হলে তো আমার আর বক্তব্য দেওয়ার কিছুই নাই। পরে আপনাদের সঙ্গে দেখা করে কথা বলবো বলে ফোন কেটে দেন।
এ বিষয়ে জেলা পুলিশের মিডিয়া মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলম বলেন, প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্ত এস আইকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত এস আইকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে।

সর্বশেষ - সারা দেশ

আপনার জন্য নির্বাচিত
ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে এইচএসসির ফল প্রকাশ

ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে এইচএসসির ফল প্রকাশ

রূপগঞ্জ থানা পুলিশের ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠিত

খাগড়াছড়ি জাতীয় মহিলা সংস্থার আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর ৭৬ তম জন্মদিন পালিত

তানোরে শীতের আগমনে লেপ-তোশক বানানোর ব্যস্ত সময় পার করছেন কারিগরেরা

বিট পুলিশিং মত বিনিময় সভা।

জয়পুরহাটে র‍্যাবের অভিযানে টাপেন্টাডল ট্যাবলেটসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক

ঈশ্বরদী উপজেলার সাড়া ইউনিয়নের ঝাউদিয়া এলাকার রোহান নামে এক স্কুল ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের উপ – আইন বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হলেন আজহারুল।

পাইকগাছায় ৫০ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক ৩

লন্ডনস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের সামনে এনবিসি ইউকের বিক্ষোভ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

%d bloggers like this:

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট