1. sjahedpoet@gmail.com : Jahed Sarwar : Jahed Sarwar
  2. admin@www.dhakartime.com : ঢাকার টাইম :
সর্বশেষ :
নানাকে খুন করায় পুলিশের হাতে নাতি আব্দুল খালেক আটক মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে রক্ত কান্ডারী স্বেচ্ছাসেবীদের দাবী সমূহঃ- নীলফামারী ডিমলায় ভুয়া পরীক্ষার্থীর কারাদণ্ড সম্প্রীতি বিনষ্টের জন্য দায়ী কতিপয় অমানুষ-হুইপ স্বপন সিরাজগঞ্জে বিএনপি জামাতের নৈরাজ্য ও পুলিশকে হামলার প্রতিবাদে ১০ নং সয়দাবাদ ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত রাজারহাটে নৌকাবাইচে হাজারও মানুষের ঢল নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান “বুলু” উপর হামলার প্রতিবাদ সমাবেশ নান্দাইলে আগুনে পুড়ে ৫ ব্যবসায়ির স্বপ্ন পুড়ে ছাই সোনারগাঁওয়ে স্বেচ্ছাসেবীদের ‘ভয়েস অব ভলান্টিয়ার’ আলোচনা সভা নবীগঞ্জে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে পুলিশের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঝালকা‌ঠি‌তে পু‌লি‌শের হেফাজ‌তে যুব‌কের আত্মহত‌্যা

  • প্রকাশিত: বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৬ বার পড়া হয়েছে

 

মো: মোস্তা‌ফিজুর রহমান রিপন, জেলা প্রতি‌নি‌ধি (ঝালকা‌ঠি):

ঝালকাঠি সদর থানা হেফাজতে হেল্পডেক্স কক্ষে আটককৃত মাদকাসক্ত রাজেশ রায় (২২) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার (১৩ সে‌প্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় পড়নের লুঙ্গি সিলিং ফ্যানের সাথে বেঁধে গলায় ফাঁস দিয়েছে বলে থানা পুলিশ ও নিহতের পিতা অমল রায় নিশ্চিত করেছে।

বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তার ছেলে রাজেশ নামের ঐ যুবককে বিকাল সাড়ে ৪টায় থানায় আনা হয়েছিল।
ঐ কক্ষে সে লুঙ্গি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে ঝালকাঠি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মইনুল হক জানান।

লাশ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের বাবা অমল রায় বলেন, আমার ছেলে রাজেশ রায় অনেক দিন ধরে নেশা করে আসছিল। তাকে সুস্থ করার জন্য আমি মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করেও চিকিৎসা করিয়েছি।

তারপরেও তাকে মাদকের পথ থেকে ফেরানো যায়নি। মঙ্গলবার বিকা‌লে সে টাকার জন্য ঝগড়ার এক পর্যায়ে আমাকে মারধর শুরু করে। তখন আমি নিজেকে রক্ষায় ৯৯৯ নম্বরে কল দিলে কিছু সময় পর পুলিশ এসে রাজেশ’কে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। সেখানে রাখার পর সকলের অজ্ঞাতে সে আত্মহত্যা করেছে।

আমল রায়ের সাথে থাকা প্রতিবেশি ইকবাল হোসেন জানায়, রাজেশকে থানায় এনে একটা কক্ষে রাখা হয়েছিলো। এসময় রাজেশের বাবা অমল রায় ওসির রুমে অভিযোগপত্র লিখছিলো। আমি তাকে দেয়ার জন্য রুটি ও কলা কিনতে থানার বাইরে যাই। এই সময়ের মধ্যে রাজেশ গলায় ফাঁ‌সি দিয়া আত্মহত্যা করে।

এ ব্যাপারে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. খলিলুর রহমান বলেন, পরিবারের অভিযোগ না থাকায় এবিষয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। নিহত রাজেশের নামে সদর থানায় পূর্বেও একটি মামলা রয়েছে এবং সেই মামলায় রাজেশের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা ছিলো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

%d bloggers like this: