1. sjahedpoet@gmail.com : Jahed Sarwar : Jahed Sarwar
  2. admin@www.dhakartime.com : ঢাকার টাইম :
সর্বশেষ :
৬৫ জন উদ্ধার ; নৌকাডুবি থেকে বেঁচে ফিরে যা জানালেন রূপগঞ্জে ৪৯ টি পূজা মণ্ডপে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও শুভকামনা জানিয়েছেন :- আব্দুর রাহিম সরকার রূপগঞ্জে উপ‌জেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফয়সাল হক ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোহাম্মদ আমান উল্লাহ মিয়াকে সংবর্ধনা উলিপুর ও চিলমারীতে দূর্গাপূজা উপলক্ষে আনসার ভিডিপির যাচাই-বাছাই কার্যক্রম অনুষ্ঠিত নিজ শহর রংপুরের আসছে শিরোপা জয়ী দলের অন্যতম সদস্য স্বপ্না রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ রাজেন্দ্রপুরে ফার্মাসিউটিক্যাল রিপ্রেজেন্টিটিভ এসোসিয়েশনের প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত গোদাগাড়ীতে ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের বেতন ভাতা বৃদ্ধি ও কথায় কথায় চাকরি হতে ছাঁটাই বন্ধে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে শুভেচ্ছা জানান রামিল হাসান সুইট

শ্রীপুরে বহুতল ভবন থেকে নির্মাণসামগ্রী পরে এক শিশুর মৃত্যু

  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে
  • Print This Post Print This Post

চীফ রিপোর্টারঃ

গাজীপুরের শ্রীপুরে বহুতল ভবনে ওপর থেকে নির্মাণসামগ্রী পরে ফাতেমা খাতুন নামে (৮), এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর)  বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার মাওনা ইউনিয়ন মাওনা উত্তরপাড়া গ্রামের স্থানীয় স্বপন খানের বহুতল ভবনের নিচে এ ঘটনা ঘটে।

শিশু ফাতেমা খাতুন ময়মনসিংহের সদর কোতোয়ালি থানার চরভবানীপুর গ্রামের মো. আমিনুল ইসলামের মেয়ে। সে স্থানীয় একটি মহিলা মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ছিল।

জানাযায়, উপজেলার মাওনা ইউনিয়ন মাওনা উত্তরপাড়া গ্রামের স্থানীয় মো. রফিকুল ইসলাম স্বপন খানের বাড়ির ছয়তলা ভবনের নির্মাণকাজ চলছে।

নিহত শিশুটির বাবা আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘আমার মেয়ে আরও দু’জনকে শিশুকে নিয়ে বহুতল ভবনের নিচে খেলা-ধুলা করছিল। এ সময় শ্রমিকেরা বহুতল ভবনের ছাদ থেকে ইটের বস্তা ভর্তি নির্মাণসামগ্রী নিচে ফেলে দেন। বস্তাটি আমার মেয়ের মাথায় পরে প্রচুর রক্তক্ষরণ শুরু হলে আশপাশের লোকজন আমার মেয়েকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই সে মারা গেছে।’

ভবন নির্মাণের দায়িত্বে থাকা ঠিকাদার মো. হানিফ মিয়া বলেন, ‘আমি ভবন নির্মাণের কাজ করছি। কিন্তু আজ আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলাম না। ভবনের ওপর থেকে মাঝেমধ্যেই ভাঙা ইটের সুরকি ফেলানো হয়। তবে আজকে ফেলানোর সময় শ্রমিকেরা দেখেননি যে নিচে শিশুরা খেলাধুলা করছিল।’

নিরাপত্তা বেষ্টনী ছাড়া বহুতল ভবনের কাজ কেন করছে?-এ প্রশ্নের জবাবে ঠিকাদার বলেন, ‘সীমানাপ্রাচীরের ভেতরে তো কাজ করছি। তাই নিরাপত্তা বেষ্টনী দেওয়া হয়নি।’

এ বিষয়ে ভবনের মালিক বলেন, ‘ঘটনার পরপরই আমি শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই। হাসপাতালে নিয়ে পৌঁছানোর আগে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।’

আপনি তো ভবনের কাজে কোনো ধরনের নিরাপত্তা বেষ্টনী দেননি?-এ প্রশ্নের জবাবে ভবনের মালিক বলেন, ‘এটা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব।’

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।’ 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

%d bloggers like this: