1. sjahedpoet@gmail.com : Jahed Sarwar : Jahed Sarwar
  2. admin@www.dhakartime.com : ঢাকার টাইম :
সর্বশেষ :
নানাকে খুন করায় পুলিশের হাতে নাতি আব্দুল খালেক আটক মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে রক্ত কান্ডারী স্বেচ্ছাসেবীদের দাবী সমূহঃ- নীলফামারী ডিমলায় ভুয়া পরীক্ষার্থীর কারাদণ্ড সম্প্রীতি বিনষ্টের জন্য দায়ী কতিপয় অমানুষ-হুইপ স্বপন সিরাজগঞ্জে বিএনপি জামাতের নৈরাজ্য ও পুলিশকে হামলার প্রতিবাদে ১০ নং সয়দাবাদ ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত রাজারহাটে নৌকাবাইচে হাজারও মানুষের ঢল নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান “বুলু” উপর হামলার প্রতিবাদ সমাবেশ নান্দাইলে আগুনে পুড়ে ৫ ব্যবসায়ির স্বপ্ন পুড়ে ছাই সোনারগাঁওয়ে স্বেচ্ছাসেবীদের ‘ভয়েস অব ভলান্টিয়ার’ আলোচনা সভা নবীগঞ্জে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে পুলিশের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

মির্জাপুরে কলেজছাত্রীর নগ্ন ভিডিও ফেসবুকে,ছাত্রীর আত্মহত্যা

  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৭৮০ বার পড়া হয়েছে

 

আরিয়ান খান ইভান
টাঙ্গাইল(মির্জাপুর)প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইল মির্জাপুর উপজেলার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের সিংজুরী গ্রামের হারুন মিয়ার মেয়ে এবং মির্জাপুর মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্রী তানিয়ার নগ্ন ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হবার পর বুধবার(২১ সেপ্টেম্বর) নিজ ঘরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।পুলিশ জানায়,একই ইউনিয়নের বুড়িহাটি গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে সুজন (২৪) তানিয়ার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে এবং গোপনে তা ভিডিও ধারণ করে। পরে ওই ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে বিভিন্ন সময় ভুক্তভোগীর কাছে থেকে প্রায় দেড় লাখ টাকার জিনিসপত্র হাতিয়ে নেয়।টাকা না দিতে চাইলে কলেজে আসা যাওয়া করার সময় পথেঘাটে মারধোর সহ অমানবিক অত্যাচার করতো এবং নগ্ন ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেবার ভয় দেখাতো সুজন।১৫ দিন আগে ওই ভিডিওটি ‘লোকাল সাফি’ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করা হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। পরে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়লে তানিয়া মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। এক পর্যায়ে বুধবার বিকালে তিনি সুইসাইড নোট লিখে তাদের বসত ঘরে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। এদিকে তানিয়ার আত্মহত্যার খবর জানাজানি হওয়ার পর অভিযুক্ত সুজন গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানা যায়।পুলিশ খবর পেয়ে মরদেহটি থানায় নিয়ে আসে।কলেজছাত্রী তানিয়ার বাবা হারুন মিয়া বলেন, ১৫ দিন আগে তার মেয়ে কলেজ থেকে ফেরার পথে সিংজুরী ব্রিজের কাছে পথরোধ করে মারধর করে সুজন। পরে খবর পেয়ে আমরা সুজনকে আটকে রাখি। ইউপি মেম্বার জাহাঙ্গীর আলম বাদশা এসে সুজনকে সতর্ক করে তার বাবা-মার কাছে দিয়ে দেন। কিন্তু তারপরও সুজন তানিয়াকে নানাভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিত। বুধবার তানিয়া নোটবুকে সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যা করেছে।হারুন মিয়া আরো বলেন,আমরা গরিব, কার কাছে বিচার চাইবো।তবে আমার মেয়ের আত্মহত্যার মূল কারণ হিসেবে বখাটে সুজন দায়ী,আমরা তার ফাঁসি দাবি করছি।তানিয়ার বড় ভাই ডিপ্লোমা প্রকৌশলী আবু তালেব অভিযোগ করে বলেন, ভিডিও ছাড়ার আগে হিলারি নামে তার দশম শ্রেণি পড়ুয়া ফুফাতো বোনের কাছে সুজন হুমকি দিয়ে এসএমএস পাঠায়। তাতে সে লেখে ‘তানি এখন বেশি বুঝল, ওর মরণ আছে’। এরপর ‘লোকাল সাফি’ আইডি থেকে ওই ভিডিওটি ফেসবুকে আপলোড করা হয়।তানিয়ার সুইসাইড হুবহু তুলে ধরা হলো- ‘আমারে তুমরা সবাই মাফ কইরা দিও, আমার। জন্য তুমাগো অনেক মান সম্মান নষ্ট হইছে, আমি চাই না তুমাগো আরো মান সম্মান নষ্ট হক। তোমরা জানো না ঐতি কি কি করছে আমার সাথে। আমের জোর কইরা ধর্ষণ করছে। তারপর আমার ছবি তুইলা সেই ছবি দিয়া আমার কাছে থাইক দেড় লাখ টাকার জিনিস নিছে।’এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, তানিয়া নামে ওই কলেজ ছাত্রী ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আত্মহত্যার কারণ উদঘাটন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

%d bloggers like this: