ঢাকাবুধবার , ১৫ মে ২০২৪
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলামিক
  7. কবিতা
  8. কৃষি সংবাদ
  9. ক্যাম্পাস
  10. খাদ্য ও পুষ্টি
  11. খুলনা
  12. খেলাধুলা
  13. চট্টগ্রাম
  14. ছড়া
  15. জাতীয়
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শ্রীপুরে একটিশ্রীপুরে একটি কারখানায় ডাকাতি:অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পঁচিশ লক্ষ টাকার মালামাল লুট

ঢাকার টাইম
মে ১৫, ২০২৪ ১:১৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:: গাজীপুরের শ্রীপুরের রাজাবাড়ি নালিয়াটেকি এলাকায় অবস্থিত ফোমেক্স ইন্ড্রাঃ (বিডি) লিঃ নামে একটি কারখানায় দূর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। এই ঘটনায় কারখানায় কর্মরত কর্মচারীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ টাকা,মোবাইল সহ কারখানার ভিতরের মালামাল লুট করে নেয় ডাকাতরা। এতে পঁচিশ লক্ষ টাকার মালামাল লুটের কথা নিশ্চিত করেছেন কারখানা কর্তৃপক্ষ।
গত সোমবার (১৩ মে) এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় কারখানাটির প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আলী আহম্মেদ বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর ২১/১৯৭।

মামলার এজাহার সূত্রে জানাযায়,গত ১৩ মে সোমবার সিকিউরিটি গার্ড নুরুল ইসলাম,মো.কবির সরকার,মোতাহার হোসেন ও কারখানার অপারেটর মো. জুয়েল কোম্পানীতে কর্মরত ছিলেন। ১৩ মে রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে কারখানার পূর্ব পাশ দিয়ে বাউন্ডারি ও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকার সুযোগে ১৪/১৫ জনের অজ্ঞাতনামা একটি ডাকাত দল সুকৌশলে কারখানায় প্রবেশ করে। এসময় কারখানায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা গার্ড নুরুল ইসলাম ও কবির সরকারকে দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে কারখানার অপারেটর মো. জুয়েল এর রুমে নিয়ে আটকে রাখে। আটকের সময় তাদের হাত, পা বেধে রাখেন এবং তাদের মুখে কস্টেপ দিয়ে আটকে দেন। ডাকাত দলের ৪ থেকে ৫ জন সদস্য বাহিরে পাহাড়ায় ব্যস্ত থাকেন এবং ভিতরে থাকা অন্য সদস্যরা মোতাহারের কাছ থেকে ১৫ হাজার,জুয়েল এর কাছ থেকে ১৬ হাজার, সাদিক আল সামির কাছ থেকে ২১০০, কবির সরকারের কাছ থেকে ৯০০ মোট ৩৪,৭৫০ টাকা ও মোতাহারের বাটন ফোন জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয়। ডাকাতরা সিকিউরিটি গার্ড নূরুল ইসলামের কাছ থেকে কারখানার মূল গেইটের ও গোডাউনের চাবি নিয়ে মূল গেইট দিয়ে একটি বড় পিকআপ ভ্যান কারখানায় প্রবেশ করান। এসময় ডাকাতরা কারখানায় থাকা ব্রা কাপ মেশিনের ডাইস-৩৭ জোড়া,ব্রা কাপ মেশিনের মূন্ড-৪৮ পিস,ব্রা কাপ মেশিনের ডাইস প্লেট-১৮ পিস,স্ট্যান্ড ফ্যান সিএফসি ১ পিস,ভিআইপি চেয়ার ২টি,সাব স্টেশন এর এসটি ক্যাবল (তামার তার) ২০ মিটার,সাব স্টেশন এর এলটি ক্যাবল ৮০ মিটার,গ্যাসের চুলা ২টি,চায়ের কাপ পিরিচ ১ ডজন,পানির জগ একটি,ওয়ার ডেকোরেটর সুপিচ ১ টি বড় পিক আপ ভ্যানে করে নিয়ে যায়। যার আ কারখানায় ডাকাতি:অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে পঁচিশ লক্ষ টাকার মালামাল লুট

নিজস্ব প্রতিবেদক:: গাজীপুরের শ্রীপুরের রাজাবাড়ি নালিয়াটেকি এলাকায় অবস্থিত ফোমেক্স ইন্ড্রাঃ (বিডি) লিঃ নামে একটি কারখানায় দূর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটছে। এই ঘটনায় কারখানায় কর্মরত কর্মচারীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ টাকা,মোবাইল সহ কারখানার ভিতরের মালামাল লুট করে নেয় ডাকাতরা। এতে পঁচিশ লক্ষ টাকার মালামাল লুটের কথা নিশ্চিত করেছেন কারখানা কর্তৃপক্ষ।
গত সোমবার (১৩ মে) এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় কারখানাটির প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আলী আহম্মেদ বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর ২১/১৯৭।

মামলার এজাহার সূত্রে জানাযায়,গত ১৩ মে সোমবার সিকিউরিটি গার্ড নুরুল ইসলাম,মো.কবির সরকার,মোতাহার হোসেন ও কারখানার অপারেটর মো. জুয়েল কোম্পানীতে কর্মরত ছিলেন। ১৩ মে রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে কারখানার পূর্ব পাশ দিয়ে বাউন্ডারি ও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকার সুযোগে ১৪/১৫ জনের অজ্ঞাতনামা একটি ডাকাত দল সুকৌশলে কারখানায় প্রবেশ করে। এসময় কারখানায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা গার্ড নুরুল ইসলাম ও কবির সরকারকে দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে কারখানার অপারেটর মো. জুয়েল এর রুমে নিয়ে আটকে রাখে। আটকের সময় তাদের হাত, পা বেধে রাখেন এবং তাদের মুখে কস্টেপ দিয়ে আটকে দেন। ডাকাত দলের ৪ থেকে ৫ জন সদস্য বাহিরে পাহাড়ায় ব্যস্ত থাকেন এবং ভিতরে থাকা অন্য সদস্যরা মোতাহারের কাছ থেকে ১৫ হাজার,জুয়েল এর কাছ থেকে ১৬ হাজার, সাদিক আল সামির কাছ থেকে ২১০০, কবির সরকারের কাছ থেকে ৯০০ মোট ৩৪,৭৫০ টাকা ও মোতাহারের বাটন ফোন জোর পূর্বক ছিনিয়ে নেয়। ডাকাতরা সিকিউরিটি গার্ড নূরুল ইসলামের কাছ থেকে কারখানার মূল গেইটের ও গোডাউনের চাবি নিয়ে মূল গেইট দিয়ে একটি বড় পিকআপ ভ্যান কারখানায় প্রবেশ করান। এসময় ডাকাতরা কারখানায় থাকা ব্রা কাপ মেশিনের ডাইস-৩৭ জোড়া,ব্রা কাপ মেশিনের মূন্ড-৪৮ পিস,ব্রা কাপ মেশিনের ডাইস প্লেট-১৮ পিস,স্ট্যান্ড ফ্যান সিএফসি ১ পিস,ভিআইপি চেয়ার ২টি,সাব স্টেশন এর এসটি ক্যাবল (তামার তার) ২০ মিটার,সাব স্টেশন এর এলটি ক্যাবল ৮০ মিটার,গ্যাসের চুলা ২টি,চায়ের কাপ পিরিচ ১ ডজন,পানির জগ একটি,ওয়ার ডেকোরেটর সুপিচ ১ টি বড় পিক আপ ভ্যানে করে নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য পঁচিশ লক্ষ টাকা। ডাকাতরা নিজেদের মধ্যে আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলেছে বলেও মামলার এজাহারে বলা হয়েছে। সেখানে ডাকাতদের বয়স ২২ থেকে ৪৫ বছরের বলেও বলা হয়। ডাকাতদের পরনে হাফ প্যান্ট,ফুল প্যান্ট,গেঞ্জি, লুঙ্গি, মুখে মাক্স ও গামছা ছিল বলেও জানান তারা।
ডাকাতরা ১৩ মে রাত আড়াই টা থেকে চার টার ভিতর এ ডাকাতি সম্পন্ন করেন।

এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আকবর আলী খান  বলেন, সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থল ওসি তদন্ত সাখাওয়াত হোসেন কে পাঠাই। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত কর্মকর্তার কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে  মামলা রুজু করা হয়েছে। পুলিশ আইনী প্রক্রিয়ায় তৎপর রয়েছেন। তিনি আরও বলেন, ডাকাতদের গ্রেপ্তার ও লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারের জন্য পুলিশের  টিম কাজ করছে। আশা করি, দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের আইনের আওতায় আনা যাবে।

এদিকে দিন দিন বেড়ে চলা কিশোর গ্যাং এর উৎপাত, চুরি,ডাকাতি,ছিনতাইসহ নানা অপরাধ কর্মকাণ্ডের জন্য আতঙ্কিত স্থানীয় জনগণ। আঞ্চলিক সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতি,গার্মেন্টস কর্মীদের বেতনের সময় ছিনতাই এর ঘটনায় স্থানীয়দের মনে নতুন করে ভয়ের সঞ্চার করেছে। তাই স্থানীয়দের দাবি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা বাড়ানো সহ পুলিশি টহল বাড়ানোর। সেই সাথে অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনা না গেলে অপরাধ প্রবণতা আরো বাড়বে বলে শঙ্কা স্থানীয়দের।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।